রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৪ পূর্বাহ্ন

চুনারুঘাটে হস্তান্তরের অপেক্ষায় উপহার : উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

নুর উদ্দিন সুমন, বার্তা সম্পাদক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৯৩ বার পঠিত

নুর উদ্দিন সুমন: মুজিববর্ষ উপলক্ষে জেলার চুনারুঘাটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার পাকা ঘর প্রস্তুত করা হয়েছে। নতুন ঠিকানা স্বপ্ননীড়ে উঠার আনন্দে এখন বিভোর। চোখে মুখে তাদের উচ্ছ্বাস। এতোদিন যাদের ঠিকানা ছিলো গাছের তলায়, কোনো অফিসের বারান্দায় বা ভাড়াটে বাসায় তারা অপেক্ষার প্রহর গুণছে প্রধানমন্ত্রী উপহার এসব পাকা ঘর পাবেন যেসব গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারগুলো। বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ানো মানুষগুলো জায়গাসহ নতুন ঘর পাবে এমন আনন্দে অনেকেই আত্মহারা। এতোদিন যা ছিল স্বপ্ন। সেই স্বপ্নই এখন তাদের হাতের মুঠায়। স্থানে স্থানে সারিবদ্ধ সবুজ রঙের টিনের পাকা ঘরগুলোকে এলাকাকে আরও মহনীয় করে তুলেছে। দৃষ্টি এড়ায় না পথিকদেরও।

‘আমরা ভীষণ খুশি। শেখ হাসিনা মাথাগোঁজার ঠাঁই দিয়েছেন। আমরা তার জন্য দোয়া করি,’ এমন মন্তব্য করে উপজেলার গাজিপুর ইউনিয়নের ইকরতলী আশ্রয়ণ প্রকল্পে ঘর পাওয়া বিধবা রহিমা খাতুন, আলেয়া খাতুন, ও আজিমা খাতুনসহ প্রায় সকলেই খুশি। এর মধ্যে বয়স্ক কয়েকজন লোকের সাথে আলাপকালে তারা বলেন, বয়সের ভারে কাজ করতে পারি না। ঠিকানাতো পেলাম। খুশির কথা ভাষায় বুঝাতে পারবো না।’ প্রায় একই মন্তব্য করেন ভূমিহীন ও গৃহহীন দিন মজুর নুরুল হুদা মিন্টুসহ অনেকেই।

উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা যায়, চুনারুঘাট উপজেলার ভূমিহীন পরিবারের জন্য ৮০ টি ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার। এরই মধ্যে ৭৪ টি ঘর প্রস্তুত করা হয়েছে। (২৩ জানুয়ারি) শনিবার সিলেট বিভাগের মধ্যে একমাত্র হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলায় ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে সরাসরি যুক্ত হবেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি উপকারভোগীদের কথা শুনবেন ও তাদের উচ্ছাস সরাসরি উপলব্দি করবেন। অনুষ্ঠানে সরাসরি উপস্থিত থাকবেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী এমপি। এ ব্যাপারে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে জেলা প্রশাসন। স্বপ্ন ছোঁয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন হবিগঞ্জের ৭৮৭টি গৃহহীন পরিবার। আজ প্রথম ধাপে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহার পরিপাটি ঘর পাবেন ৩২৫টি পরিবার। দ্বিতীয় ধাপে পাবেন বাকিরা।এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান জানান, প্রতিটি ঘর নির্মাণে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। আর প্রতিটিতে পরিবহন ব্যয় হিসেবে দেয়া হয়েছে আরও ৪ হাজার টাকা। ঘরগুলো ইতিমধ্যেই প্রস্তুত হয়ে উঠছে। ২৩শে জানুয়ারি প্রথম ধাপে ৩২৫টি ঘর হস্তান্তরের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। বাকিগুলোর কাজ শেষ হতে আরও কিছু সময় লাগবে। পরিবারের নিকট গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নতুন ঘর উপহার দেওয়ার কার্যক্রম উদ্বোধনের পর গৃহহীন পরিবারকে নতুন ঘর বুঝিয়ে দেওয়া হবে। নতুন ঘর তৈরি শেষে বাকিদের পর্যায়ক্রমে ঘর হস্তান্তর করা হবে।
উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল কাদির লস্কর বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই উদ্যোগ দরিদ্র মানুষের স্বপ্ন বাস্তবায়ন হবে। মুজিববর্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জমি ও ঘর উপহার দেওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com