সোমবার, ১১ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
চুনারুঘাটে সাতছড়ি বন থেকে চুরি হওয়া ১৩ টুকরো সেগুন গাছ উদ্ধার ২শ পিস ইয়বাসহ মাদককারীকে হাতেনাতে ধরে দিলেন সিএনজি চালক নজির সর্বোচ্চ মাদক উদ্ধারে জেলার শ্রেষ্ঠ হলেন চুনারুঘাটের ওসি মো:আলী আশরাফ বাহুবলবাসীর হৃদয়ে সর্বদা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে বিদায়ী ইউএনও স্নিগ্ধা তালুকদার। চুনারুঘাটে ছাত্রলীগনেতা সায়েম তালুকদারের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালিত ঐতিহাসিক দরবার শরীফ মুড়ারবন্দের রাস্তার ভিত্তি প্রস্তরের উদ্বোধন চুনারুঘাটে আওয়ামীলীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন চুনারুঘাটে ৭কেজি গাঁজা সহ আটক ৩ চানপুর বাগানের বাবু শফিকুল ইসলামের মায়ের ইন্তেকাল টাস্কফোর্সের অভিযান: ৫৩ বস্তা ভারতীয় চাপাতা উদ্ধার

পরিকল্পনামন্ত্রীকে সুনামগঞ্জের সুধীসমাজের সংবর্ধনার প্রস্ততি

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১৩১ বার পঠিত

মোশারফ হোসেন লিটন সুনামগঞ্জ : সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেপথ্য কারিগর ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন সজ্জন রাজনীতিবিদ পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানকে সংবর্ধনা দেবে সুনামগঞ্জের সুধীসমাজ। সুধী-জনতার ভালোবাসায় সিক্ত হবেন তিনি। সিলেট থেকে সুনামগঞ্জ পর্যন্ত তাকে পথে সংবর্ধনা দেবে সাধারণ জনতা। প্রিয় নেতাকে বরণ করতে পথে পথে তৈরি হয়েছে প্রায় দেড় শতাধিক সুসজ্জিত তোরণ। গোবিন্দগঞ্জ থেকে সুনামগঞ্জ পর্যন্ত খণ্ডিত কয়েকটি পথসভাও অনুষ্ঠিত হবে।
আজ শনিবার দুপুর ১২টায় আব্দুজ জহুর সেতুর পশ্চিম পাশে সুনামগঞ্জ হাউজিং মাঠে অনুষ্ঠিত হবে সুধী সমাবেশ। সেখানে সংবর্ধিত হবেন তিনি। আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন জননেতা পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। তিনি তাকে প্রথমে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এবং সর্বশেষ নির্বাচনে বিজয়ী হবার পর পরিকল্পনামন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী হাওরাঞ্চলের প্রতি অত্যন্ত দরদী থাকায় পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান তার মাধ্যমে জেলার স্বাস্থ্য, শিক্ষা, যোগাযোগসহ অবকাঠামোগত উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখছেন। এ কারণে জেলার সাধারণ মানুষ তাকে উন্নয়নের বরপুত্র বলে অভিহিত করেন। কেউ কেউ বলেন হাওর রত্ন। তবে উন্নয়নে বিশ্বাসী এমএ মান্নান কথা কম বলে কাজের মাধ্যমেই জবাব দিয়ে যাচ্ছেন। তার প্রচেষ্টায়ই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুনামগঞ্জবাসীকে বিশ্ববিদ্যালয় উপহার দিয়েছেন। এর আগে গত বছর জেলার সাধারণ মানুষ ও আওয়ামী লীগ বিশ্ববিদ্যালয় খসড়া আইন অনুমোদন করায় সুনামগঞ্জ স্টেডিয়ামে বিশাল গণসংবর্ধনা দিয়েছিল পরিকল্পনামন্ত্রীকে। এবার বিশ্ববিদ্যালয় চূড়ান্ত অনুমোদন লাভ করায় সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ ও সদর উপজেলা পরিষদ উন্নয়নকামী এই নেতাকে স্মরণকালের বৃহৎ সুধীসমাবেশের আয়োজন করেছে। আজ শনিবার ১২ ডিসেম্বর দুপুরে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। সমাবেশে প্রায় ২৫ থেকে ৩০ হাজার মানুষের সমাগম হবে। প্রতিটি উপজেলা থেকেই হাজার হাজার মানুষ অংশ নিবেন বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন। ইতোমধ্যে প্রিয় নেতাকে বরণ করতে দেড় শতাধিক তোরণের পাশাপাশি হাজারো ফেস্টুন লাগানো হয়েছে। তার নির্বাচনী ও জন্ম এলাকা দক্ষিণ সুনামগঞ্জবাসী মনবেগ থেকে ৩ হাজার মোটর সাইকেল ও ৩০০ শতাধিক মাইক্রোবাসে তাকে বরণ করবে। সিলেট থেকে ছাতক ও সুনামগঞ্জের নেতাকর্মীরা তাকে বরণ করবেন। ছাতক এলাকায়ও তাকে পথে পথে কৃতজ্ঞতা জানাবে এলাকাবাসী। ইতোমধ্যে দক্ষিণ ছাতকবাসী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তাকে নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন। তারা তার মাধ্যমে দক্ষিণ ছাতক উপজেলা বাস্তবায়নের দাবি প্রত্যাশা করছেন।
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের ব্যক্তিগত সহকারি হাসনাত হোসাইন বলেন, মন্ত্রী মহেদায় ঢাকা থেকে শনিবার সকাল ৮টা ৫০ মিনিটের দিকে সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছাবেন। পথে পথে তাকে ছাতক এলাকাবাসী বরণ করবে। তিনি পথসভায় সংবর্ধনার জবাব দিবেন।
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূরুল হুদা মুকুট বলেন, জেলার সুধীসমাজ জেলাব্যাপী বিশাল উন্নয়নের কারণে পরিকল্পনামন্ত্রী মহোদয়ের কাছে ঋণী। বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি উড়াল সড়ক, রেলসহ আরো বৃহত্তম প্রকল্পগুলো তিনি পরিকল্পনা কমিশন থেকে পাস করে নিয়েছেন। এগুলো পর্যায়ক্রমে পাস হবে। তিনি বলেন, জেলা ব্যাপী এসব উন্নয়নের কারণে আমরা সেই ঋণ সুধীসমাজকে নিয়ে ভালোবাসার মাধ্যমে শোধ করতে চাই। উন্নয়নে বিশ্বাসী সজ্জন এই রাজনীতিবিদকে তাই আমরা সম্মান জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তার সম্মানে জনতা স্বতঃস্ফূর্ত শত শত তোরণ বানিয়েছে। তিনি বলেন, এমএ মান্নানের কারণে আমরা জাতীয়ভাবে উন্নয়নের সমতায় পৌঁছার সুযোগ পেয়েছি। তাকে সম্মান না জানানো হবে অকৃতজ্ঞতা। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পরিকল্পনামন্ত্রীকে সুধীসমাজের মাধ্যমে কৃতজ্ঞতা জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com