মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন

ভূল চিকিৎসায় গবাদি পশুর মৃত্যুর অভিযোগ কৃষাণীর আহাজারি থানায় মামলা

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৭ জুন, ২০২০
  • ২৬৮ বার পঠিত

চুনারুঘাট প্রতিনিধি ।।জেলার চুনারুঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের কালিশিড়ি গ্রামের অসহায় গরীব রজব চান নামের এক কৃষাণীর একটি গবাদি পশুকে (গরু) ভুল চিকিৎসার দেওয়ার কারনে মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গুরুটি মারা যাওয়ার পর ও কৃষাণী নারী মৃত গরুর পাশে বসে আহাজারি করতে দেখা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১৭জুন বিকালে কালিশড়ি গ্রামে। এনিয়ে উপজেলায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। এঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষাণী নারী বাদী হয়ে গত রাতে চুনারুঘাট থানায় ওই অপচিকিৎসকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, কৃষানীর দীর্ঘ দিন ধরে গবাদি পশু (গরু) পালন করে আসছেন। গরুটি গত কিছুদিন হলো দাউদ রোগে আক্রান্ত হয়। এ বিষয়ে কৃষানী রজব চান একই উপজেলার গাদিশাল গ্রামের মুকিত মিয়া নামের গুরটি চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন। আব্দুল মুকিত গরুটির চিকিৎসা করতে গিয়ে পর পর ৫টিইঞ্জেকশন পুষ করেন। তার এমন অপচিকিৎসায় গুরুটির অবনতি ঘটলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। পরে ওই নারী ডাক্তার মুকিতকে বাবার ফোন দিলে তিনি তার ফোন রিসিভ করেননি। পরবর্তীতে সরকারি চিকিৎসক মাধ্যমে নিশ্চিত হন অতিরিক্ত ইনজেকশনের কারণে গরুটি মারা যায়। গুরুটির বাজার মুল্য হবে ৬৫হাজার। ওই অসহায় কৃষাণী নারী ওই অপচিকিৎসক মুকিতের শাস্তি ও বিচার চান। কৃষাণী নারী রজব চান বলেন, আমার শেষ সম্বল কষ্ট করে গরুটি লালন পালন করেছি। হঠাৎ গরু অসুস্থ দেখে ডাক্তারের পরামর্শ নিলাম। ডাক্তার বলে গরুর কঠিন রোগ দেখা দিয়েছে। তাই বলে তিনি ইনজেকশন দেন। প্রথমে ডাক্তার সাহেব কে বলেছিলাম স্যার গরুটিকে ইঞ্জেকশন দিয়েন না,কিন্তু তিনি রাগ করে বলেন ডাক্তার তুমি নাকি আমি? রজব চানের অভিযোগ ইঞ্জেকশন দেওয়ার পর থেকেই গরুটি আরো অসুস্থ হয়ে পরে,এক পর্যায়ে গরুটি মাটিতে পরে কাতরাতে কাতরাতে মারা যায়। এব্যাপারে চুনারুঘাট থানার ওসি শেখ নাজমুল হক বলেন অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com