সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৪:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
চুনারুঘাটে ৬ বছরের ব্যবধানে দুই ভাইকে হত্যা ॥ গ্রেপ্তার ৩ ঈদ উল আযহা উপলক্ষে পৌর এলাকার ইমাম-মুয়াজ্জিনদের সম্মানী ভাতা প্রদান বানিয়াচং হাসপাতালে অনিয়ম দুর্নীতির প্রতিবাদে মানববন্ধন চুনারুঘাটে চেয়ারম্যান পদে সৈয়দ লিয়াকত হাসানের চমক ॥ কাইয়ূম ও খাইরুন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত সিলেট ওসমানী হাসপাতালে পানি ঢুকে চরম দুর্ভোগ মিরপুরে এনা বাসের চাপায় শিশু নিহত ॥ সড়ক অবরোধ শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান ইকবাল ॥ ভাইস চেয়ারম্যান আফজল ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ডলি নির্বাচিত বাহুবলে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে শিশু নিহত আগামীকাল ৩ উপজেলায় ভোট গ্রহণ ॥ প্রস্তুতি সম্পন্ন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন এমপির বিরুদ্ধে আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগ

শপথ অনুযায়ী ওসির নেতৃত্বে মাদকের বিরুদ্ধে বিরামহীন অভিযান ৪৫ কেজিগাঁজাসহ আটক ৩

নুর উদ্দিন সুমন, বার্তা সম্পাদক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২০
  • ২৮৫ বার পঠিত

নুর উদ্দিন সুমন : শপথ অনুযায়ী মাদককে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করার পর থেকে ওসি শেখ নাজমুল হক এর নেতৃত্বে চুনারুঘাটে চলছে বিরামহীন অভিযান। করোনা পরিস্থিতিতে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা অচল। কিন্তু এমন সময়েও নানা চক্র সচল থাকে। এই দুর্যোগ-অচলাবস্থার দিনেও মাদক কারবারিরা সক্রিয়। তারপরও দেশের এ ক্রান্তিলগ্নেও থামছেই না মাদকের বিস্তার। অতি মুনাফার লোভে মাদকে নানা পদার্থ মিশিয়ে সেটাকে প্রায় বিষ বানিয়ে ফেলা হচ্ছে। আর সেগুলোকেই বেশি দাম দিয়ে কিনে খেয়ে মানুষ মরছে। বিপুল মাদকদ্রব্য জব্দ, গ্রেফতার, কঠোর পদক্ষেপের পরও মাদক ব্যবসায়ীদের নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। গত ১৪ থেকে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত অভিযানে মাদক কারবারের সাথে জড়িত ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই সময়ে ৪৫ কেজি গাজাঁ ও মাদকবহনের পিকাআপ জব্দ করা হয় । করোনা ভীতিকে কাজে লাগিয়েই চলছে রমরমা মাদক ব্যবসা। করোনাভাইরাস নিয়ে দেশ এখন এক মানবিক বিপর্যয়ের সম্মুখীন তা মোকাবেলায় সর্বত্র নেওয়া সতর্কতার মাঝে যারা মাদক কারবারের সাহস দেখিয়েছে তারা ভয়ঙ্কর সমাজ ও রাষ্ট্রবিরোধী। করোনাভাইরাস এমনিতে ছোঁয়াচে। এ মুহূর্তে মাদকের সংস্পর্শ মানে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করা। ১৪ আগস্ট দিবাগত রাতে চুনারুঘাট থানার এসআই শেখ আলী আজহার ও শহীদুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুনারুঘাট পৌরসহরস্থ চন্দনা অভিযান চালিয়ে পিকআপের বডির মধ্যে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা ৩০কেজি গাঁজা ও পিকআপসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হল চুনারুঘাটের আমকান্দি গ্রামের নিম্বর উল্ল্যার ছেলে আব্দুল কাইয়ুম (৪০) ও বাহুবল উপজেলার সুন্দাটিকি গ্রামের মৃত ঠান্ডা মিয়ার ছেলে সফিক মিয়া(৪৮)। এসময় তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। এছাড়া গত ১৩ আগস্ট দিবাগত রাতে ৩০ কেজিগাজাসহ নুর হোসেন (৩২)নামে ১জনকে আটক করা হয় । নুর হোসেন উপজেলার দৌলত খা আবাদ গ্রামের জবেদ আলীর। এসময় পুলিশের উপস্থিতি পেয়ে তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সাতছড়ি চাকলকা পুঞ্জি এলাকায় গাজা পাচার হচ্ছে এমন সংবাদ আসে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে চুনারুঘাট থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত চম্পক দাম এর নেতৃত্বে এসআই ভুপেন্দ্রসহ একদল পুলিশ চাকলাপুঞ্জি এলাকায় অভিযান চালিয়ে নুর হোসেনকে আটক করেন। পুলিশ জানায়, গোপনে পাচারের উদ্দেশ্যে পিকআপের বডির মধ্যে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা ১৫ কেজি গাঁজা এবং দুইজনসহ পিকআপটি আটক করেন এসআই আলী আজহার ও এসআই শহীদুল ইসলাম। দারোগা আজহার জানান, ওসি স্যারের নির্দেশনায় অভিযানে গিয়ে পিকআপের বডির ভেতরে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে গাঁজা পাচার কালে আমরা দুই
মাদককারবারিকে আটক করেছি । এসময় তার সহযোগী পালিয়ে যায়। ওসি শেখ নাজমুল হক জানান, আটক আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী পালাতক মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করতে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আমরা শপথ করেছি সে অনুযায়ী গুরুত্ব সহকারে কাজ করছি, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা স্যারের সার্বিক সহযোগীতায় চুনারুঘাট উপজেলাকে মাদক মুক্ত করতে আমাদের বিরামহীন অভিযান চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com