শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০২:১৯ অপরাহ্ন

সোহেল তাজের অপহৃত ভাগ্নে সৌরভ উদ্ধার

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০১৯
  • ৩০২ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্টঃ সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজের ভাগ্নে সৈয়দ মোহাম্মদ ইফতেখার আলম সৌরভকে (২৫) চট্টগ্রাম থেকে অপহরণের ১১ দিন পর ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলা থেকে উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ভোরে একটি গাড়ি থেকে সৌরভকে নামিয়ে দেওয়া হয়, এরপর তাঁকে উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

চট্টগ্রামে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের উপ-কমিশনার মো. শহীদুল্লাহ বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ভোর সোয়া ৫টার দিকে ময়মনসিংহের তারাকান্দা ইউনিয়নের একটি রাইস মিলের সামনে একটি গাড়ি থেকে সৌরভকে নামিয়ে দেওয়া হয়। উদ্ধারের পর বর্তমানে সৌরভকে ঢাকার বনানীতে তার পরিবারের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টায় নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে পেজে লাইভে এসে সোহেল তাজ তাঁর ভাগ্নের সন্ধান পাওয়ার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘সকাল ৫টা ২৭ মিনিটে আমার মামাতো বোন আমাকে ফোন করেন যে, কিছু মানুষ, কল আসে, একটি গাড়ি থেকে একটি ছেলেকে ফেলে দিয়ে যাওয়া হয়েছে। সে ছেলেটা খুব ছন্নছাড়া অবস্থায়। সেই মানুষগুলো তাকে সেইফ জোনে নিয়ে যায়।’

সৌরভের বাবা সৈয়দ ইদ্রিস আলম বলেন, “সৌরভকে ময়মনসিংহে পাওয়া গেছে বলে পুলিশ আমাদের জানিয়েছে। তাকে পুলিশ প্রোটেকশনে ঢাকায় আনা হচ্ছে। শারীরিকভাবে ও অনেক দুর্বল হয়ে গেছে।”

গত ৯ জুন চট্টগ্রাম থেকে নিখোঁজ হন সৌরভ। ২৮ বছর বয়সী এই যুবক বন্দর নগরীর পাঁচলাইশ এলাকায় বাবা-মার সঙ্গে থাকেন; ঢাকায় ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনিভাসির্টিতে পড়াশোনার পর চট্টগ্রামের একটি স্কুলে শিক্ষকতা করেন।

সৌরভের পরিবারের অভিযোগ, ঢাকার এক ব্যবসায়ীদের মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কের জের ধরে তাকে অপহরণ করা হয়। এর পেছনে সরকারি কোনো বাহিনীর কর্মকর্তাদের হাত রয়েছে বলেও সোহেল তাজের সন্দেহ।

গত সোমবার সৌরভের মা সৈয়দা ইয়াসমিন আরজুমান ও বাবা সৈয়দ মো. ইদ্রিস আলমকে সঙ্গে নিয়ে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছিলেন সোহেল তাজ। সৈয়দা ইয়াসমিন আরজুমান ওই সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গত ৮ জুন দুপুরে সৌরভের কাছে একটি ফোন আসে। তাকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে সব কাগজপত্র তৈরি রাখতে বলা হয়। পরদিন বেলা ৩টায় আবার ফোন করে সৌরভকে চট্টগ্রাম মিমি সুপার মার্কেটের আগোরার সামনে থাকতে বলা হয়।

ওই ব্যবসায়ীদের মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কের কারণে এর আগেও কয়েকবার সৌরভকে তুলে নিয়ে গিয়ে হুমকি দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ করা হয় সৌরভের পরিবারের পক্ষ থেকে।
সুত্রঃ কালের কন্ঠ

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com