মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৩:৫৭ অপরাহ্ন

ঈদুল ফিতর উদযাপন তরুণদের উন্মাদনা, জনমনে শঙ্কা ও উৎকন্ঠা

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২৪
  • ২৫ বার পঠিত

সেবা ডেক্স : ঈদুল ফিতর উদযাপন নিয়ে একশ্রেনির উঠতি বয়সের তরুনদের বেলাল্লাপনা আচরন ডায়না, ট্রাক ও পিকআপে সাউন্ডবক্স বসিয়ে উন্মাদনা নাচ গানে সড়ক মহাসড়কের শৃংখলা বিনষ্টতায় সাধারন মানুষের মাঝে উদ্বেগ ও উৎকনন্ঠ শুরু হয়ে গেছে। পরিবেশবিদ বিশেষজ্ঞ মনে করেন এখনই যদি এটি রোধ করা না যায় তবে এক সময় তাই সমাজ অবক্ষয় বন্যপ্রাণী পশুপাখি ও সাধারণ নাগরিকের জন্য মারাতœক প্রতিবন্ধকতা হয়ে দাড়াবে। প্রকৃতি ও পরিবেশ হারাবে তার ভারসাম্য। দেখা যায় প্রতি বছরই ঈদুল ফিতর, ঈদুল আযহা, পহেলা বৈশাখ কিংবা অন্য কোন বিশেষ দিবসে একশ্রেনির উঠতি বয়সের ছেলেরা ট্রাক, ডায়না বা পিকআপ গাড়িতে সাউন্ডবক্স বাদ্যযন্ত্র লাগিয়ে হুইহুল্লুর করে সড়ক ও মহাসড়কে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালায়। এছাড়াও বিভিন্ন ব্যান্ডের মোটর সাইকেল ৩/৪ জন এর অধিক বাহন থাকেন। পাল্লা দিয়ে বেপরোয়া গতিতে কে আগে কে পিছে মহাসড়কে চলে এদও দাপট। তাদের বেলাল্লাপনার কারনে সাধারন ও ভদ্রশ্রেণীর পরিবারের লোকজন জাতীয় উদ্যানে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ে। বিগত সময়ে স্থানীয়ভাবে ছুটিতে আসা ও বিভিন্ন ¯’ানের পর্যটক এদও অশ্লীলতায় স্থান ত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছে। বেপরোয়া গতিতে চলাচলের কারনে শুধুমাত্র ঈদেও সময়ে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয় শতাধিক প্রাণ হারায় কমপক্ষে ৭/৮ জন। তারপরও এদের গতি কমানো যায়নি। বাদ্যযন্ত্রের অতিরিক্ত শব্দ ও উঠতি বয়সের তরুনদের বিকট আওয়াজে বন্যপ্রানী পশু পাখি ও তাদের আবাসস্থল হারিয়ে অন্যত্র চলে যায়। সাধারন পর্যটকদের দাবি আগামী ঈদুল ফিতওে যেন রাস্তা, চা-বাগান ও জাতীয় উদ্যান যেন থাকে উৎসব মূখর ও নিরাপদ পর্যটন এলাকা। স্থানীয় চেয়ারম্যান প্রশাসন এদিকে সুদৃষ্টি দিবেন এমন প্রত্যাশা সকলের।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com