সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:২০ অপরাহ্ন

লেখাপড়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা করতে হবে: হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০১৯
  • ৩৬১ বার পঠিত

নিজস্ব সংবাদদাতা :: হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা (বিপিএম-সেবা) বলেছেন, তারুণদেরকে লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা করতে হবে। খেলাধুলা শরীর ও মন ভাল রাখে। সুস্থ থাকতে হলে খোধুলার বিকল্প নেই। যারা খেলাধুলার প্রতি মনোযোগী তারা অপরাধ কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকে না। তাই তরুণ প্রজন্মকে খেলাধুলায় উদ্বুদ্ধ করতে হবে। খেলাধুলার আয়োজনে সমাজের প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদেরকে এগিয়ে আসতে হবে।

শুক্রবার দুপুরে বানিয়াচং উপজেলার মুরাদপুর গ্রামের ডিএমপি ওয়ারী বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ নূরুল আমিনের পিতা প্রাক্তণ শিক্ষক মোহাম্মদ মমদু মিয়া মাস্টার দ্বৈত ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির পুলিশ সুপার এসব কথা বলেন।

পুলিশ সুপার আরো বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাস করে তিনি যেমন নিজে লেখাপড়া করেছেন, তেমনি তার সন্তানদের উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করেছেন। তার সন্তান নুরুল আমীন বিসিএস উত্তীর্ণ হয়ে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে বিশেষ ভূমিকা রাখছেন। নূরুল আমীনের মত এলাকায় তরুণদের উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করে দেশের কল্যাণে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, আজকাল সরকারি কর্মকর্তারা কর্ম ব্যবস্থার কারণে এলাকায় মানুষের কথা চিন্তার সময় থাকে না। কর্ম ব্যবস্থার মধ্যে এলাকার যুবকদের উৎসাহিত করতে পুলিশ কর্মকর্তার নূরুল আমীনের এ ধরণের সামাজিক কর্মকান্ড নিশ্চই প্রশংসনীয়।

প্রাক্তণ শিক্ষক মোহাম্মদ মমদু মিয়া মাস্টারের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণীয় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, ডিএমপি ওয়ারী বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ নূরুল আমিন, হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী এডভোকেট আবু বকর সিদ্দিকী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শৈলেন চাকমা, আজমিরীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন মিয়া, সুবিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. মুকিদুল ইসলাম, বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রাশেদ মোবারক, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি তৈয়বুর রহমান চৌধুরী। এছাড়াও মুরাদপুরসহ আশপাশের এলাকাগুলোর গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায় হাফেজ মানিক চৌধুরী দল চ্যাম্পিয়ন ও শাহ হৃদয় এর দল রানার্সআপ হয়। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এলাকার স্কুল ও মাদ্রাসার ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে মারিয়াম-আয়েশা ফাউন্ডেশ এর পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গঁবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনীর ৩শ’ কপি এবং ১শ’ ডিকশনারি বিতরণ করা হয়। এছাড়া এলাকার ইমাম মোয়াজ্জিনকে ৫০টি পাঞ্জাবী উপহার দেয়া হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com