শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ০২:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বাহুবলে গরুর ধান খাওয়া নিয়ে ৯ গ্রামের সংঘর্ষ : পুলিশসহ আহত শতাধিক চুনারুঘাটে খুনি কামাল,র ফাঁসি ও বাকিদের গ্রেফতারের দাবিতে মাদক বিরোধী শক্তি সংগঠনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত সাকিব আল হাসানের অর্থায়নে হবিগঞ্জে ৪শ পরিবার পেল খাদ্য সামগ্রী চুনারুঘাটে রাব্বি হত্যার আসামি শ্রীমঙ্গলের ভারত সীমান্ত থেকে গ্রেফতার শ্রীমঙ্গল করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন কাউন্সির আহাদ শ্রীমঙ্গল করোনায় মৃত কাউন্সিলর এর গোসলএর জন্য প্রস্তুতি সম্পন্ন চুনারুঘাটে ছাত্রলীগ নেতা জাকারিয়া তারেকের উপর সন্ত্রাসীদের হামলা মাধবপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষে বৃদ্ধা নিহত! আটক-৫ চুনারুঘাটে ঈদের আনন্দ নেই খুন হওয়া কিশোর রাব্বীর পরিবারে সাতছড়ি উদ্যানে মানুষের ঢল, একাধিক দুর্ঘটনা

চুনারুঘাটে ২৩ টি চা বাগানে ২ দিনের স্বেচ্ছা ছুটি

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ, ২০২০
  • ২৫ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টারঃ করোনা আতংকে চুনারুঘাটে ২৩টি চা বাগানের প্রায় ৩৫ হাজার শ্রমিক স্বেচ্ছায় ২ দিনের ছুটিতে গিয়েছেন। চুনারুঘাটের লস্করপুর ভ্যালির শ্রমিক নেতারা সেই ছুটি ঘোষণা করেন। মঙ্গলবার ও বুধবার চা শ্রমিকরা সেই‘আনলিভ’ ছুটি ভোগ করবেন। চা শ্রমিকরা বছরে ১৪ দিন আনলিভ ছুটি ভোগ করে থাকেন। সেই ছুটি থেকে ২ দিনের ছুটি কর্তন হবে জানান শ্রমিক নেতারা। বাগানের সাধারণ শ্রমিকদের মাঝে করোনা আতংক দেখা দেয়ায় তারা বাগানের সমুদয় কাজ বন্ধ রাখার দাবী জানিয়ে আসছিলো কিন্তু বাগান কর্তৃপক্ষ উপর মহলের নির্দেশ না থাকায় বাগান সচল রাখার সিদ্ধান্তে অটল থাকে। এ নিয়ে বাগান কর্তৃপক্ষের সাথে শ্রমিক নেতাদের কয়েক দফা বৈঠক হয় কিন্তু বাগান কর্তৃপক্ষ উপরের মহলের সিদ্ধান্ত ছাড়া বাগানের কাজ কাম বন্ধ রাখার বিপক্ষে অবস্থান নেয়। এরই প্রেক্ষিতে সোমাবার শ্রমিক নেতাদের এক জরুরী বৈঠক হয় এতে মঙ্গলবার থেকে বুধবার বাগানে স্বেচ্ছা ছুটি ঘোষনা করা হয়। শ্রমিক নেতা,ইউপি সদস্য মাখন গোস্বামী বলেন, বাগান শ্রমিকরা সকাল ৭ টা থেকে বিকাল ৫ টা অব্দি কাজ করে চলেছে। কারখানাগুলোতেও চলছে কাজ। চুনারুঘাট উপজেলায় ডানকান ব্রাদার্স,ন্যাশনাল টি কোম্পানী ও ব্যক্তিমালাকাধীন চা বাগানের সংখ্যা ২৩টি। এতে নিয়মিত শ্রমিক রয়েছেন ৩৫ হাজার। তাদের পোষ্যসহ সাধারন শ্রমিক রয়েছেন দেড় লাখের উপরে। ওই শ্রমিকরা এক সাথে দল বেঁধে কাজে যায়। তিনি বলেন, ঘরে ফিরে এসে পরিবারের শিশুদের সাথে মেলা মেশা করে, রান্না-বান্না করে তারা। বার বার হাত ধোয়ার রেওয়াজও চালু হয়নি বাগানগুলোতে। চা বাগানগুলোতে করোনা সতর্কতা এখনো জারি করা হয়নি। চা বাগানে স্বাস্থ্য কর্মীসহ জনপ্রতিনিধিরা এখনো শুরু করেননি করোনা প্রতিরোধ বিষয়ে কোন কাজ। বাগানের অলিগলিতে গড়ে উঠা বিভিন্ন পন্যের দোকান-পাট গভীর রাত পর্যন্ত খোলা থাকে। পাড়া- মহল্লার মদের দোকান গুলোও উন্মুক্ত। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সত্যজিত রায় বলেন, চা বাগান বন্ধ করার কোন নির্দেশনা এখনো আসেনি তবে শ্রমিকদের মাঝে করোনা সর্তকতা বাড়ানোর কাজ চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com