শুক্রবার, ২৭ মার্চ ২০২০, ০৯:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বাহুবলে হতদরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন ইউএনও বাহুবলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৩ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে জরিমানা হবিগঞ্জে নিম্ন আয়ের শ্রমিকদের খাদ্য সামগ্রী দিয়ে বাড়িতে পাঠালেন- ডিসি এনি লস্করের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা হতদরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে গেল হবিগঞ্জের স্থানীয় পত্রিকার প্রকাশনাও স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস আজ চুনারুঘাটে ২যুবককে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত ওসমানীতে প্রেরণ আটক ১ বাহুবলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৩ব্যবসায়ীকে ১৫ হাজার জরিমানা চুনারুঘাটে নতুন এসিল্যান্ড মিলটন চন্দ্র পাল চুনারুঘাটে করোনা সংক্রমণ এড়াতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জীবাণুনাশক ছিটানোহচ্ছে

সাংবাদিক আরিফকে মধ্যরাতে সাজা।হাইকোর্ট বেঞ্চে তুলে ধরবেন ব্যারিস্টার সুমন।

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৫ মার্চ, ২০২০
  • ১৬ বার পঠিত

সেবা ডেস্ক।। কুড়িগ্রামে মধ্যরাতে বাসা থেকে ধরে নিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এক সাংবাদিককে কারাদণ্ড দেওয়ার বিষয়টি হাইকোর্টের নজরে আনতে যাচ্ছেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়েদুল হক সুমন। 

শনিবার (১৪ মার্চ) বিকেলে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, আগামীকাল ১৫ মার্চ(রোববার) বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে মধ্যরাতে সাংবাদিককে সাজা দেওয়ার বিষয়টি তুলে ধরবেন।

ব্যারিস্টার সুমন বলেন,‘‘কুড়িগ্রামে যে ঘটনা ঘটেছে, তা ক্ষমতার অপব্যবহারের নিকৃষ্ট দৃষ্টান্ত। কিছু আমলার ক্ষমতার অপব্যবহারের কারণে সরকারের সাফল্য ম্লান হয়ে যাচ্ছে।’’ তিনি জানান, দণ্ডপ্রাপ্ত সাংবাদিক আরিফুল ইসলামের পরিবারকে সব ধরনের আইনি সহায়তা দিতে তিনি প্রস্তুত রয়েছেন।  

শুক্রবার দিবাগত (১৩ মার্চ) মধ্য রাতে কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের একজন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে কয়েকজন আনসার সদস্য সাংবাদিক আরিফুলের বাসায় জোর করে প্রবেশ করেন। তারা সেখানে কোনো তল্লাশি অভিযান চালাননি। অথচ আরিফুলকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নেওয়ার পর তারা দাবি করেন,  তার বাসায় আধা বোতল মদ ও দেড়শত গ্রাম গাঁজা পাওয়া গেছে।  আরিফুলকে রাতেই ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক বছরের সাজা দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন একটি পুকুর সংস্কার করে নিজের নামে নামকরণ করতে চেয়েছিলেন। আরিফুল এ বিষয়ে নিউজ করার পর থেকে তার ওপর ক্ষুব্ধ ছিলেন জেলা প্রশাসক। 

 সম্প্রতি জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে রিপোর্ট করতে চেয়েছিলেন আরিফুল ইসলাম। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকের অফিস থেকে তাকে বেশ কয়েকবার ডেকে নিয়ে সতর্ক করা হয়।
সূত্রঃ- রাইজিংবিডি ডটকম

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com