রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান এর দাফন সম্পন্ন মাধবপুরে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত ডাকাত এরশাদ আলী সিলেট থেকে গ্রেফতার ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ছুঁই ছুঁই গাজীপুরে গুইসাপ খেয়ে বাঘের মৃত্যু! আজ হবিগঞ্জে আসছেন নাসার বিজ্ঞানী ড. দীপেন ভট্টাচার্য্য সদর উপজেলার লস্করপুর ইউনিয়নের যমুনাবাদে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান আর নেই ॥ শোক প্রকাশ চুনারুঘাটে কাঠ উদ্ধারের স্থান নিয়ে টালবাহানা বনাঞ্চল হুমকীর মুখে,বিপুল সেগুন কাঠ উদ্ধার স্ত্রীর স্বজনদের হামলায় বাগান প্রহরী সুলতান আহত বাহুবলে হামিদিয়া হলিচাইল্ড একাডেমিতে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন

বিদেশ ফেরত পুত্রের লাশ নিয়ে ফেরার পথে লাশ হলেন পিতা

নুর উদ্দিন সুমন, বার্তা সম্পাদক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১০ আগস্ট, ২০১৯
  • ৭ বার পঠিত

নাজিম উদ্দিন সুহাগ।।  সৌদি আরবে মারা যাওয়া ছেলের মরদেহের কফিন বিমানবন্দর থেকে নিয়ে ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নিজেই লাশ হয়ে ফিরেছেন আলী আহমদ (৬০) নামে এক পিতা।

নিহত আলী আহমদ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শাহাজাহানপুর ইউনিয়নের জালুয়াবাদ গ্রামের আলী আহমদের ছেলে জজ মিয়া

শুক্রবার (৯ আগস্ট) সন্ধ্যায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে নবীগঞ্জ উপজেলার সৈয়দপুর এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। এ সময় কফিনবাহী অ্যাম্বুলেন্সটি রাস্তা থেকে প্রায় ২০ ফুট নিচের খাদে পড়ে যায়।

খবর পেয়ে শেরপুর হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পিতা-পুত্রের মরদেহ উদ্ধার করে।

শেরপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ওয়াহিদুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনায় নিহত আলী আহমদের ছেলে জজ মিয়া (২২) প্রায় এক মাস আগে সৌদি আরবে মারা যান। শুক্রবার বিকেলে তার মরদেহের কফিন সিলেট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দেরে এসে পৌঁছায়।

ছেলের কফিনটি নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সযোগে বাড়ির উদ্দেশে রওয়ানা দেন আলী আহমদ। অ্যাম্বুলেন্সটি বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সৈয়দপুর এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপভ্যান হঠাৎ ভুল সাইডে চলে আসে। তাৎক্ষণিকভাবে অ্যাম্বুলেন্স চালক দুর্ঘটনা এড়াতে চাইলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটি রাস্তার পার্শ্ববর্তী প্রায় ২০ ফুট নিচের একটি খাদে গিয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে শেরপুর হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ছেলের কফিন ও বাবার মরদেহ উদ্ধার করে।

এদিকে দুর্ঘটনার পর পরিবারের লোকজন ছেলের মরদেহের কফিনটি বাড়িতে নিয়ে গেছেন। তবে নিহতের বাবা আলী আহমদের মরদেহ শেরপুর হাইওয়ে থানায় রাখা হয়েছে। সেখানে সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com