বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু জাহির ও সাধারণ সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী হবিগঞ্জ জেলা আ’লীগের সম্মেলন আজ॥ কারা হচ্ছেন আ’লীগের কাণ্ডারি॥ শেষ মুহুর্তেও কাটেনি সিলেকশন-ইলেকশন ধোঁয়াশা ডি,এন,আই মডেল স্কুল ছাদে কৃষি ও মেয়েদের ফ্যাসিলিটি রুমের শুভ উদ্বোধন দুর্গাপুর দত্তবাড়ীতে শ্রীশ্রী কৃষ্ণকালী মাতার পূজা চুনারুঘাটে সরকারী নির্দেশ অমান্য করে বালু উত্তোলনের দায়ে ১ জনের কারাদন্ড। ২ ট্রাক্টর জব্দ। চুনারুঘাটে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস পালন চুনারুঘাটে নানা আয়োজনে বেগম রোকেয়া দিবস পালন ও বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৫ জয়িতাকে সংবর্ধনা চুনারুঘাটে ১৭তম আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস পালিত পুলিশ কন্যা রুম্পা প্রেম বিচ্ছেদ দ্বন্দ্ব নিয়েই খুন ॥ প্রেমিক সৈকত ৪ দিনের রিমান্ডে চুনারুঘাটে আইনজীবীর বাড়িতে হামলার ঘটনায় নাগরিক সমাবেশ।

শহরের গরুর বাজার এলাকা থেকে পাচারকালে ২ হাজার বস্তা সরকারী চাল জব্দ

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৮ আগস্ট, ২০১৯
  • ৩১ বার পঠিত

হবিগঞ্জ সংবাদদাতাঃ হবিগঞ্জ শহরের গরুর বাজার এলাকার একটি গোদাম থেকে পাচারকালে প্রায় ২ হাজার বস্তা সরকরি চাল জব্দ করেছে জেলা প্রশাসন। গতকাল বুধবার রাতে এসব চাল জব্দ করা হয়। ‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশ ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ’ শ্লোগান লেখা খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির এ চাল বিভিন্ন ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের মাঝে চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে বিতরণ করা হয়ে থাকে। আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে হতদরিদ্রদের মধ্যে বিতরণের জন্য ভিজিএফ এর চাল সরকার থেকে বিশেষভাবে বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রত্যেকের মাঝে ১৫ কেজি করে বিতরণের কথা রয়েছে। আর ভিজিডি প্রত্যেকের মধ্যে ৩০ কেজি করে বিতরণের কথা।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াছিন আরাফাত রানা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গরুর বাজার এলাকার হাবিবুর রহমান খানের মালিকানাধীন সুরমা অটোরাইছ এন্ড ফাওয়ার মিলে অভিযান চালানো হয়। এ সময় মিলের গোদামে রাখা সরকারি ১ হাজার ৫০ বস্তা, একটি ট্রাকে ভর্তি ৮৬০ বস্তা এবং বিপুল পরিমান খোলা চাল জব্দ করা হয়। যা পাচারের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছিল সরকারি বস্তা থেকে চালগুলো খুলে অন্য বস্তায় ভরা হচ্ছিল। খাদ্য অধিদপ্তরের সীল সম্বলিত প্রতিটি বস্তাই ৩০ কেজি ওজনের। এগুলো দরিদ্রদের মাঝে বিতরনের ভিজিডি এবং ভিজিএফ এর চাল বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর সাথে যারাই জড়িত তাদের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার নয়নের বরাত দিয়ে জানান, চালগুলো বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের কাছ থেকে কেনা হয়েছে। অভিযানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিছুর রহমানসহ সদর থানার পুলিশ ও সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন। অভিযানকালে ট্রাক চালক পালিয়ে যান এবং ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান খান গোদামে ছিলেন না।
ব্যবসায়ীদের একটি সূত্র জানায়, হাবিবুর রহমান খান দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন স্থান থেকে অবৈধভাবে সরকারি চাল ক্রয় বিক্রয়ের ব্যবসা করে আসছেন। তিনি সরকারি এসব চাল এনে খুলে অন্য বস্তায় ভরে তা পাচার করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com