বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০৬:০৮ অপরাহ্ন

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ ॥ সর্বোচ্চ জিপিএ-৫ বৃন্দাবন সরকারী কলেজে ৭৪টি ॥ জেলায় এইচএসসিতে পাশের হার ৬৭.১৭%

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯
  • ১৯ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ সারা দেশের ন্যায় হবিগঞ্জেও এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে পরীক্ষার ফলাফল তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দিপু মনি। এর পর পরই সারা দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ন্যায় হবিগঞ্জেও ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এ বছর হবিগঞ্জ জেলা থেকে এইচএসসি, আলীম ও বিএম পরীক্ষায় মোট-১৫ হাজার ৬শ ৫৭ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাশ করেছে ১০ হাজার ৮শ ২৬ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে এইচএসসিতে জিপিএ-৮৫ জন, আলীম-এ ১৩ ও বিএম-এ ১ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে। জেলায় জিপিএ-৫ পেয়েছে মোট ৯৯ জন শিক্ষার্থী। জেলায় পাসের হার এইচএসসি-তে ৬৭.১৭, আলীম-এ ৯১. ৬০ ও বিএম-এ ৫৬.৩২২ শতাংশ। জেলা শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, হবিগঞ্জ জেলায় এবার এইচএসসি পরীক্ষায় ১৪ হাজার ৬শ ৫৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে ৯ হাজার ৯শ ৮৩ জন পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হয়। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮৫ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৬৭.১৭ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ৮শ ২৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাশ করেছে ৭শ ৪৫ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৩ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৯১. ৬০ শতাংশ। এই প্রথম বার চালু হওয়া বিএম পরীক্ষায় ১৭৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাশ করেছে ৯৮ জন। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৫৬.৩২ শতাংশ। হবিগঞ্জ জেলার প্রত্যেক উপজেলার ফলাফল নিম্নরূপ-

হবিগঞ্জ সদর উপজেলা ঃ- এইচএসসি পরীক্ষায় সদর উপজেলা থেকে ৩ হাজার ৪শ ২৮ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়ে ২ হাজার ৪শ ২ জন পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭৪ জন পরীক্ষার্থী। পাশের হার ৭০.০৭ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ২শ ২১জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে ১শ ৮৮ জন পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৮৫. ০৭ শতাংশ। বিএম পরীক্ষায় হবিগঞ্জ সদর উপজেলায় কোন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করেনি।

লাখাই উপজেলা ঃ– লাখাই উপজেলা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ৫শ ৭০ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে ৩শ ৪৬ জন পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে কোন পরীক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার ৬০.৭০ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ৩২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে ৩০ জন কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে পরীক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার ৯৩.৭৫ শতাংশ। ওই উপজেলা থেকে বিএম পরীক্ষায় কোন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করেনি।

শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা ঃ- শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ৯শ ৩২ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে কৃতকার্য হয়েছে ৬শ ৫৪ জন পরীক্ষার্থী। কোন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার ৭০. ১৭ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ৯৬ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে কৃতকার্য হয়েছে ৯১ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৯৪.৭৯ শতাংশ। ওই উপজেলা থেকে কোন পরীক্ষার্থী বিএম পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেনি।

বাহুবল উপজেলা ঃ– বাহুবল উপজেলা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ১ হাজার ৩শ ৬৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে কৃতকার্য হয়েছে ৬শ ১০ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে কোন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার ৪৪.৭৫ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ৩৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ৩৫ জনই কৃতকার্য হয়েছে। তবে কোন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার শতভাগ। ওই উপজেলা থেকে বিএম পরীক্ষায় কোন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করেনি।

নবীগঞ্জ উপজেলা ঃ- নবীগঞ্জ উপজেলা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ২ হাজার ১শ ৯২ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে কৃতকার্য হয়েছে ১ হাজার ৭শ ১৬ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৭৮..২৮ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ২শ ২৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে কৃতকার্য হয়েছে ২শ ১১ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৯২.৫৪ শতাংশ। ওই উপজেলা থেকে বিএম পরীক্ষায় কোন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করেনি।

চুনারুঘাট উপজেলা ঃ– চুনারুঘাট উপজেলা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ১ হাজার ৩শ ১২ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে কৃতকার্য হয়েছে ৯শ ৪০ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৭১.৬৫ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ১শ ২৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ১শ ৯ জন পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৮৫.৮৩ শতাংশ। ওই উপজেলা থেকে কোন শিক্ষার্থী বিএম পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেনি।

মাধবপুর উপজেলা ঃ– মাধবপুর উপজেলা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ১ হাজার ৯শ ৯৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে কৃতকার্য হয়েছে ১ হাজার ৫শ ২৮ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ৪ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে। পাশের হার ৭৬. ৪৮ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ৪৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ৪৭ জন পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৯৭.৯২ শতাংশ। ওই উপজেলা থেকে বিএম পরীক্ষায় ১শ ৭৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ৯৮ জন পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন শিক্ষার্থী। পাশের হার ৫৬..৩২ শতাংশ।

বানিয়াচং উপজেলা ঃ– বানিয়াচং উপজেলা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ২ হাজার ১শ ৭৫ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ১ হাজার ২শ ৮৪ জন শিক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে কোন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার ৫৯.০৩ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ৪১ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ৩৪ জন শিক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে কোন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার ৮২.৯৩ শতাংশ। ওই উপজেলা বিএম পরীক্ষায় কোন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করেনি।

আজমিরীগঞ্জ উপজেলা ঃ– আজমিরীগঞ্জ উপজেলা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ৬শ ৮৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ৫শ ০৩ জন শিক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে কোন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার ৭৩.৪৩ শতাংশ। আলীম পরীক্ষায় ৩২ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে কৃতকার্য হয়েছে ৩০ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে কোন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়নি। পাশের হার ৯৩.৭৫ শতাংশ। ওই উপজেলা থেকে কোন শিক্ষার্থী বিএম পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেনি।

এদিকে, হবিগঞ্জের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ বৃন্দাবন সরকারি কলেজ অন্যান্য বছরের তুলনায় এবারও উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জিত হয়েছে। পুরো হবিগঞ্জ জেলায় এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮৫ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে শুধু বৃন্দাবন সরকারি কলেজেরই ৭৪ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে। বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৩ জন আর মানবিক বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১ জন শিক্ষার্থী। ওই বিদ্যালয়ে মোট পাশের হার ৯০.০৯ শতাংশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com