বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৭:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
চুনারুঘাটে পিক-আপ যোগে গাঁজা পাচারকালে বাহুবলের যুবক আটক : ২৭ কেজি গাঁজা উদ্ধার চুনারুঘাটে ১০ কেজি গাঁজাসহ আটক১ উন্মুক্ত ড্রেনের পাশ দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন ছাত্র ছাত্রী : দুর্ঘটনার আশঙ্কা চুনারুঘাট পূর্বাঞ্চলের ত্রাস ১২ মামলার পলাতক আসামি জমরুত গ্রেফতার চুনারুঘাট পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু তাহের সম্পাদক আবুল খায়ের চুনারুঘাটে দুই দিনব্যাপী শিশু মেলা  সমাপ্ত  জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে  ২ দিনব্যাপী শিশু মেলা উদ্বোধন অনলাইনে ভূমি সম্পর্কে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন পাওনা টাকা আদায়ের জন্য মামলা দায়ের: বাদীকে হুমকি শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে চুনারুঘাটে আওয়ামীলীগের প্রতিবাদ সমাবেশ

চুনারুঘাটে মোটর চুরি ঘটনায় একটি মহল গোলা পানিতে মাছ শিকারের অচেষ্টায় লিপ্ত

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২
  • ৪১ বার পঠিত

প্রতিনিধিঃ চুনারুঘাট উপজেলার কাচুয়া বাজারের রফিক মিয়ার দোকানের সামন থেকে হিরো গ্লামার মোটর চুরি হয়। কিন্ত এ ঘটনায় নিয়ে একটি মহল গোলা পানিতে মাছ শিকারের অচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। গত ইউপি নিবার্চনের ৩নং দেওরগাছ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পরাজিত প্রার্থী ফারুক মিয়াকে ফাসাঁনোর অপচেষ্টা চলছে বলে দাবী করেছে ফারুক মিয়া।
স্থানীয় বাসিন্দা ও ফারুক মিয়া জানান, সদ্য অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনের উপজেলার দেওরগাছ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করেন তিনি। তার সাথে নির্বাচনে প্রতিদ্ধন্দি¦তা করেন বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ আব্দুল আলী ওরফে লাল মিয়া। উক্ত নির্বাচনে না দাড়াঁনোর জন্য লাল মিয়া ফারুক মিয়াকে অনুরোধও জানান এবং বিশেষ কায়দায় বসানোর চেষ্টা করলেও তিনি নির্বাচন করেন। ওই নির্বাচনে ফারুক পরাজয় লাভ করেন। নির্বাচনের জের ধরে বর্তমান ইউপি সদস্য লাল মিয়ার সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। ফারুকের দাবী নির্বাচনের বিরোধের জেরেই মোটর সাইকেল চুরি মামলায় তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে।

গত ২৪শে মার্চ কাচুয়া বাজারস্থ রফিক মিয়ার দোকানের সম্মুখ থেকে ইউপি সদস্য লাল মিয়ার মোটর সাইকেল চুরি হয়। পুলিশ মোটর সাইকেল চুরির অভিযোগে মাধবপুর উপজেলার শাহজিবাজার থেকে বাপ্পী (২৪) কে গ্রেফতার করে। তাঁর স্বীকারোক্তি মোতাবেক কাওছার (৩৫) কে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ব্রাহ্মণগাও থেকে চোরাই মোটর সাইকেল সহ গ্রেফতার করেন।
চুরির ঘটনায় চুনারুঘাট থানায় ১ জনকে আসামী করে মামলা করেন ইউপি সদস্য লাল মিয়া। মামলার আসামী উপজেলার কালিচুং গ্রামের মৃত ছিদ্দিক আলীর পুত্র কাওছার মিয়াকে অভিযুক্ত করেন তিনি।
পুলিশ কাউছারকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে কাউছার ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং নোয়াবাদ গ্রামের আনোয়ার মিয়ার পুত্র বাপ্পি উসমানও জড়িত বলে জানায়। বাপ্পি উসমান এর বিরুদ্ধে গাছ চুরি, মাদক মামলা সহ নানান অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে। বাপ্পি ও কাউছারকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাপ্পি আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com