বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
চুনারুঘাট প্রবাসী উন্নয়ন পরিষদের শীতার্তদের মাঝে উষ্ণ ভালবাসা বাহুবল উপজেলা সাংবাদিক ফোরামের বার্ষিক বনভোজন ও আনন্দ ভ্রমন সম্পন্ন বাহুবলে বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট টুনামেন্ট উদ্বোধন করলেন সাবেক অধিনায়ক আশরাফুল চুনারুঘাটে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে এক ব্যক্তিকে ৬ মাসের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রীর উপহার আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের ঘর পেলো ৭৪টি পরিবার চুনারুঘাটে হস্তান্তরের অপেক্ষায় উপহার : উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী চুনারুঘাটে হরিহরপুরে শাহীন আলমের অপরূপ সবুজ বৃক্ষ কুঞ্জ মাধবপুরে শীতার্থ মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ মাধবপুর উপজেলা পরিষদের মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত যানজট মুক্ত করতে ব্যাপক উদ্যোগ নিয়েছে শায়েস্তাগঞ্জের হাইওয়ে পুলিশ

শায়েস্তাগঞ্জে শীতবস্ত্র নিয়ে অসহায় শীতার্তদের পাশে ইউএনও মিনহাজুল

নুর উদ্দিন সুমন, বার্তা সম্পাদক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
  • ২১ বার পঠিত

নুর উদ্দিন সুমন : জেলার শায়েস্তাগঞ্জ প্লাটফর্মে শুয়ে থাকা ছিন্নমূল, দরিদ্র ও অসহায় মানুষের জন্য শীতবস্ত্র (কম্বল) নিয়ে এসে গায়ে জড়িয়ে দিলেন শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিনহাজুল ইসলাম। কনকনে শীত উপেক্ষা করে গাড়িতে করে শীতবস্ত্র (কম্বল) নিয়ে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই রেলওয়ে জংশনের ফ্লার্টফমে থাকা শীতার্ত ও অসহায় মানুষগুলোর মধ্যে এ কম্বল বিতরণ করেন তিনি। বিতরণের দ্বিতীয় দিনে আজ শুক্রবার আশ্রায়নসহ উপজেলার বিভিন্ন স্হানে অসহায় মানুষগুলোর মধ্যে প্রায় শতাধিক শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরণ করা হয়। রেলওয়ে জংশনের প্লাটফর্মে জরিনা বিবি একটি ছেঁড়া চাদর গায়ে জড়িয়ে ঘুমানোর চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু হিমেল হাওয়ায় তার ঘুম আসছিল না তখন তিনি (কম্বল) নিয়ে এসে গায়ে জড়িয়ে দেন তিনি । কম্বল পেয়ে খুশিতে আপ্লুত বৃদ্ধ জরিনা। শুধু তাই নয় এভাবে প্লাটফর্মে ছেঁড়া কাপড় মুড়ি দিয়ে থাকা রমিজ মিয়া, ফুলবানু, খেলুসহ ছিন্নমূল মানুষের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দেন তিনি। এছাড়াও শায়েস্তাগঞ্জ আশ্রয়নে অসহায়দের মাঝে শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরণ করা হয়েছে। এপর্যন্ত দুদিনে শতাধিক অসহায়দের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন তিনি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিনহাজুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিন আগে রাতে ট্রেন থেকে নেমে চোখে পড়ে ছিন্নমূল লোকরা একটি ছেঁড়া চাদর দিয়ে কষ্ট করে ঘুমানোর চেষ্টা করছে। অসহায় মানুষগুলোর কষ্ট অনূভব করে উপলব্ধি করেছি, প্রচণ্ড শীত নিবারণের জন্য তাদের ন্যূনতম শীতের গরম কম্বল নেই। তাই তাদের কষ্ট কিছুটা লাঘব করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে এই সহযোগিতা করেছি । শীতের রাতে কম্বল পেয়ে ছিন্নমূল লোকেরা বলেন, মধ্যরাতে কম্বল নিয়ে ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় নিজ হাতে কম্বল জড়িয়ে দিয়েছেন। এমন ইউএনও কোনদিন দেখিনাই। আমরা তার মঙ্গল কামনা করি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com