শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বাহুবলে গরুর ধান খাওয়া নিয়ে ৯ গ্রামের সংঘর্ষ : পুলিশসহ আহত শতাধিক চুনারুঘাটে খুনি কামাল,র ফাঁসি ও বাকিদের গ্রেফতারের দাবিতে মাদক বিরোধী শক্তি সংগঠনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত সাকিব আল হাসানের অর্থায়নে হবিগঞ্জে ৪শ পরিবার পেল খাদ্য সামগ্রী চুনারুঘাটে রাব্বি হত্যার আসামি শ্রীমঙ্গলের ভারত সীমান্ত থেকে গ্রেফতার শ্রীমঙ্গল করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন কাউন্সির আহাদ শ্রীমঙ্গল করোনায় মৃত কাউন্সিলর এর গোসলএর জন্য প্রস্তুতি সম্পন্ন চুনারুঘাটে ছাত্রলীগ নেতা জাকারিয়া তারেকের উপর সন্ত্রাসীদের হামলা মাধবপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষে বৃদ্ধা নিহত! আটক-৫ চুনারুঘাটে ঈদের আনন্দ নেই খুন হওয়া কিশোর রাব্বীর পরিবারে সাতছড়ি উদ্যানে মানুষের ঢল, একাধিক দুর্ঘটনা

হবিগঞ্জে চালককে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গাড়ি ছিনতাই ॥ দুই ঘাতক আটক

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২০ মে, ২০২০
  • ৪ বার পঠিত

নুর উদ্দিন সুমন ॥ জেলার সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে সাগর সরকার (১৮) নামে এক পিকআপ ভ্যান চালককে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গাড়ি ছিনতাই করেছে একটি চক্র। ঘটনার ৫ দিন পর মরদেহ উদ্ধার ও দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক দুইজনের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ১৮ মে বিকেলে চুনারুঘাট উপজেলার সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানের অরণ্য থেকে গাড়ি চালকের মরদেহ উদ্ধার করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলামসহ পুলিশের একটি টিম। নিহত সাগর হবিগঞ্জ জেলা শহরের ঘাটিয়া এলাকার প্রদীপ সরকারের ছেলে।
আটককৃতরা হল, শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার কাদির মিয়ার ছেলে আলাউদ্দিন (১৮) ও হবিগঞ্জ শহরতলীর যশেরআব্দা এলাকার তাজু মিয়ার ছেলে বাবুল মিয়া (২২)। পুলিশ জানিয়েছে বাবুলই হত্যাকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারী। নিহত সাগর এবং ঘাতক বাবুল কবির মিয়া নামে এক ব্যক্তির গাড়ি চালাতেন শ্রমিক হিসেবে। গত ১০ মে সাগর নিখোঁজ হয়েছেন মর্মে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন তার বাবা। এনিয়ে তদন্তে নামলে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে পুলিশের সন্দেহ সৃষ্টি হয় বাবুল ও আলাউদ্দিনকে ঘিরে। এক পর্যায়ে বাবুলকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের পর হত্যার কথা স্বীকার করে সে। তারই দেয়া তথ্যমতে আটক করা হয় আলাউদ্দিনকে। এক পর্যায়ে আটক দুইজনকে সাথে নিয়ে পুলিশ সাতছড়ি থেকে গলিত মরদেহটি উদ্ধার করে। তার হাত পা গাছের সাথে বাঁধা ছিল। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম এসব তথ্য জানান। তিনি আরো জানান, বাবুলের কিলিং মিশন অনুযায়ী আলাউদ্দিনসহ একটি চক্র ভাড়ার নাম করে সাগরসহ তার গাড়িটি সাতছড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে চালককে গামছা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গাড়ি নিয়ে মাধবপুরে মনতলায় ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় চলে যায় তারা। পরবর্তীতে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাসুক আলীসহ পুলিশ সদস্যরা গাড়ি জব্দ ও দুইজনকে আটক করলে হত্যাকান্ড রহস্যের জট খুলতে থাকে। তিনি বলেন, এ ব্যাপারে গুরুত্বের সাথে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। হত্যার চক্রে আরো কেউ জড়িত রয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে সাগর হত্যার পিছনে অন্য কারণ রয়েছে কি না।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 Prothomsheba
Theme Developed BY ThemesBazar.Com